সর্বশেষ

Friday, September 10, 2021

ডার্ক ওয়েব থেকে কোন কিছু কিনতে গেলে আপনাকে যেসব বিষয় লক্ষ রাখতে হবে।

ডার্ক ওয়েব থেকে কোন কিছু কিনতে গেলে আপনাকে যেসব বিষয় লক্ষ রাখতে হবে।

 ডার্ক ওয়েব থেকে কোন কিছু কিনতে গেলে আপনাকে অবশ্যই কিছু বিষয় খুব ভালো করে ধারণা নিয়ে নিতে হবে। 





১. খুবই শক্তিশালী একটি ভিপিএন ব্যবহার করবেন যাতে কোনো লগ, ডাটা এবং এনক্রিপশন না থাকে। 


২. টর ভিপিএন ব্যবহার করবেন। যদি পারেন ট্র্যাকার ব্যাবহার করবেন যেমন টরেন্ট ট্র্যাকার বা স্ট্রিমিং ট্র্যাকার। 


৩. কখনো নিজের রিয়েল মেইল দিবেন না। এনক্রিপশন মেইল দিবেন বা ফেইক মেইল দিবেন। 


৪. যেই btc দিয়ে পেমেন্ট করবেন সেটাও যেনো ফেইক হয়। যেমন, নতুন একটা Blockchain account খুলে তাতে btc transfer করে সেটা দিয়ে পেমেন্ট করবেন। এবং প্রোডাক্ট পেলেই সেই আইডি ডিলেট করে দিবেন। 


৫. প্রোডাক্ট কেনার পর যদি ডিজিটাল product হয় তাহলে অ্যাকসেস বাদে বাকি সব সব ডিলেট করে দিবেন আর যদি ফিজিক্যাল প্রোডাক্ট হয় তাহলে প্রোডাক্ট হতে পাওয়ার পর ফেক মেইল ডিলেট করে দিবেন, লোকেশন পরিবর্তন করবেন, ফোন রিসেট দিবেন, যেই নম্বর দিছেন সেটা ডিলেট করে দিবেন, যেই ভিপিএন ব্যাবহার করতেছেন যদি পেইড হয় তাহলে অ্যাকাউন্ট ডিলেট করে দিবেন  -- মোট কথা আপনাকে ধরার যেনো কোনো ওয়ে না থাকে। 


পোস্ট লেখক - Team Unknown 


দ্রুত মোটা হওয়ার সহজ উপায়

দ্রুত মোটা হওয়ার সহজ উপায়

 চিকন এবং রোগা পাতলা স্বাস্থ্য দ্রুত মোটা এবং সুস্বাস্থ্যবান করতে অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য গ্রহণ করতে হবে। আর অবশ্যই আপনি পূর্বে যে পরিমাণ খাবার খেতেন তার তুলনায় বেশি খাদ্য খেতে  হবে।



তবে এক্ষেত্রে একটি সবার কমন সমস্যা হচ্ছে খাবারের প্রতি রুচি না থাকা। আর এই সমস্যা সমাধানের জন্য বেশিরভাগ মানুষই রুচি বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন ধরনের ঔষধ সেবন করে থাকেন। এটা একদমই উচিত নয় এবং এগুলো অনেক ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে।

তাই আমার অনুরোধ থাকবে খাবারের রুচি বৃদ্ধির জন্য কোন প্রকার ওষুধ সেবন না করার জন্য। আপনি খাবার খাওয়ার থেকে অবশ্যই মনোযোগ দেবেন এবং পূর্বের তুলনায় বেশি খাওয়ার চেষ্টা করবেন তাহলেই পারবেন এজন্য আপনাকে কোন প্রকার ঔষধ না খেলেও হবে।


তবে খাবার খাওয়ার সময় অবশ্যই খাদ্য ভালোভাবে চিবিয়ে খাবেন। আর কখনোই টিভি দেখতে দেখতে বা কোনও কাজ করা অবস্থায় খাবার খাবেন না। খাবার খাওয়ার সময় সব ধরনের কাজ এবং টিভি দেখা অথবা ফোন ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন।

অনেকেই খাবার শেষে অতিরিক্ত পানি পান করে যা পেটে গ্যাস সৃষ্টি করার জন্য দায়ী। খাবার খাওয়ার পর পরই অতিরিক্ত পানি একদমই পান করবেন না। অল্প পরিমাণে পানি পান করবেন এবং খাবার খাওয়ার কমপক্ষে আধাঘন্টা পর আপনি বেশি পরিমাণে পানি পান করবেন।


সব সময় অবশ্যই চেষ্টা করবেন বাহিরের সকল খাবার এড়িয়ে চলার এবং বাসার পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার চেষ্টা করবেন।

কারণ বাহিরের খাবারগুলো খুবই ক্ষতিকারক এজন্য আমাদের সুস্থ থাকতে হলে অবশ্যই বাহিরের খাবার গুলো পরিহার করতে হবে।


আর মোটা হওয়ার জন্য আপনাকে যে শুধু মাছ মাংস খেতে হবে এমনটা নয়। কারণ মাছ মাংস ছাড়া অনেক পুষ্টি সমৃদ্ধ শাকসবজি এবং ফলমূল রয়েছে যা খুবই কম মূল্যের। কিন্তু সেগুলো স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী।

আর খাবার খাওয়ার সময় অবশ্যই  অতিরিক্ত ভাজাপোড়া খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলবেন। কারণ ভাজাপোড়া খাবার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক।


স্বাস্থ্য মোটা এবং সুস্থ রাখতে আপনি কি একসাথে প্রচুর খাদ্য গ্রহণ না করে, তিন বেলার জায়গায় চারবেলা বা আরো বেশি খেতে পারেন। এতে আপনার স্বাস্থ্যের দ্রুত উন্নতি হবে। প্রত্যেক বেলা খাবার খাওয়ার মাঝে তিন থেকে চার ঘণ্টা বিরতি নেয়া ভালো।

তবে আপনি একটা না কিছুক্ষণ পর পর খাবার খেতে থাকলে তেমন একটা উন্নতি পাবেন না। সুস্বাস্থ্যবান থাকতে এবং স্বাস্থ্য কিছুটা মোটা করতে সাধারণ কিছু খাবারই যথেষ্ট যেমন:

আলু

আলু খুবই সাধারন একটি খাবার হলেও স্বাস্থ্যের জন্য এটি অত্যন্ত ভালো। প্রতিদিন প্রায় সবাই কম বেশি আলু খেয়ে থাকে। আলু একটি ফ্যাট জাতীয় খাদ্য যা শরীর দ্রুত মোটা করতে সাহায্য করে। তাছাড়াও আলুতে রয়েছে কার্বোহাইড্রেট এবং কমপ্লেক্স সুগার যা আপনাকে দ্রুত মোটা করতে এবং ওজন বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।


তবে স্বাস্থ্য মোটা করার জন্য আলু সিদ্ধ করে খাওয়া খুবই উপকারী। স্বাস্থ্য মোটা করতে অবশ্যই আপনি পূর্বের তুলনায় দ্বিগুণ আলু খাবেন এতে খুব দ্রুত ফলাফল পাবেন।

ডিম

ডিম এমন একটি প্রাণিজ আমিষ জাতীয় খাবার যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। এবং ডিমে অনেক পুষ্টিসমৃদ্ধ উপাদান রয়েছে যা আমাদের স্বাস্থ্যের প্রায় সকল রকমের পুষ্টি চাহিদা পূরণ করতে পারে।

ডিমে রয়েছে উচ্চমাত্রার প্রোটিন ফ্যাট এবং ভালো মানের ক্যালরি। আপনার স্বাস্থ্যের দ্রুত উন্নতি ঘটাবে এবং দ্রুত ওজন বৃদ্ধি করবে।


ভালো ফলাফলের সাথে অবশ্যই ডিম সিদ্ধ করে খাবেন কাঁচা অবস্থায় ডিম খাওয়া উচিত নয় এতে অনেক রকম সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

আর তেলে ভাজি করে বা অতিরিক্ত ভাজি অবস্থায় ডিম খাওয়া উচিত নয় কারণ এতে ডিমের অনেক গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান নষ্ট হয়ে যায়।





কিসমিস

দ্রুত ওজন বৃদ্ধি করতে প্রতিদিন সকালে কিসমিস ভিজিয়ে খেতে পারে। কিসমিস অনেক পুষ্টিকর এবং দ্রুত ওজন বৃদ্ধিতে সহায়ক। কিসমিস আপনার শরীরের ওজন বৃদ্ধির পাশাপাশি শরীর সুস্থ রাখবে এবং এর পুষ্টি উপাদান আপনার শরীরকে সুস্বাস্থ্যবান রাখতে সহায়তা করবে।

কাঁচা ছোলা

কাঁচা ছোলা খুবই পুষ্টি সমৃদ্ধ একটি খাবার। কাঁচা ছোলায় মাছ-মাংসের চেয়েও বেশি প্রোটিন এবং পুষ্টিসমৃদ্ধ উপাদান রয়েছে। এবং প্রচুর পরিমাণে ক্যালোরি রয়েছে। আপনার স্বাস্থ্য দ্রুত উন্নত করার জন্য নিয়মিত কাঁচা ছোলা খেতে একদমই ভুল করবেন না।

দুধ

আমরা জানি দুধে রয়েছে উচ্চমাত্রার ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম ও প্রোটিন সহ আরো অনেক পুষ্টিকর উপাদান যা আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত জরুরী। স্বাস্থ্যের দ্রুত উন্নতি ঘটাতে এবং মোটা হতে চাইলে অবশ্যই নিয়মিত দুধ পান করবেন।


ফলমূল এবং সবুজ শাকসবজি

প্রাকৃতিক ফলমূল এবং সবুজ শাকসবজি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। দ্রুত মোটা হওয়ার জন্য অবশ্যই ফলমূল খাবেন। একজন সুস্থ মানুষের প্রতিদিন ২৫০ থেকে ৩০০ গ্রাম ফল খাওয়া প্রয়োজন।

তবে অবশ্যই চেষ্টা করবেন আপনার খাদ্য তালিকায় ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল বেশি পরিমাণে রাখার জন্য।


আর ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফলমূল আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা আমরা কমবেশি প্রায় সকলেই জানি। এছাড়াও আপনার খাদ্য তালিকায় অবশ্যই সবুজ শাকসবজি রাখবেন। সবুজ শাক সবজিতে রয়েছে হাজারো রকমের পুষ্টি গুনাগুন যা আমাদের স্বাস্থ্যের পুষ্টি চাহিদা পূরণ করতে সাহায্য করবে।

আরো পড়ুন….

পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি

স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে চাইলে এবং দ্রুত শরীর মোটা করার জন্য পানি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করলে দেহের কোষ গুলো বিকশিত হয় এবং নতুন নতুন কোষের জন্ম নেয়।

শরীরের দ্রুত উন্নতি ঘটাতে চাইলে এবং মোটা হতে চাইলে অবশ্যই প্রতিদিন ৮ থেকে 10 গ্লাস পানি পান করতে হবে।


পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুম

স্বাস্থ্য মোটা করতে হলে অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমানো প্রয়োজন। ঘুম আমাদের শরীরের ক্লান্তি দূর করতে এবং শক্তি জোগাতে সহায়তা করে। সুস্বাস্থ্যবান থাকতে হলে অবশ্যই ৮ থেকে ৯ ঘণ্টা ঘুমানো প্রয়োজন। স্বাস্থ্য দ্রুত মোটা করার জন্য অবশ্যই পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে হবে।

তবে অনেকে স্বাস্থ্য মোটা করতে গিয়ে অতিরিক্ত ঘুমায় অতিরিক্ত ঘুমালে শরীরের স্থুল হয় ঠিকই তবে অতিরিক্ত ঘুম স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।


ব্যায়াম

কী ব্যায়াম এর কথা শুনে ভয় পেয়ে গেছেন। বেশিরভাগ মানুষই অলস এজন্য বাঙালিরা কেউই ব্যায়াম বা শরীরচর্চা করতে রাজি নয়। তবে সুস্থ থাকার জন্য শরীর চর্চা করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অনেকেই আবার ভাবে যে ব্যায়াম করলে শরীর মোটা হবে কিভাবে উল্টো শরীর শুকিয়ে যাবে। এটা একদমই ভুল কথা ব্যায়াম করলে শরীর শুকিয়ে যায় না উল্টো বডি ফিট হয়। এছাড়াও শরীর সুস্থ ও রোগমুক্ত থাকে।


রোগা পাতলা এবং চিকন স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে অবশ্যই ব্যায়াম করুন। কারণ শরীরচর্চা এবং খেলাধুলা আপনার স্বাস্থ্যের দ্রুত উন্নতি ঘটাতে সাহায্য করবে। তবে ব্যায়াম না করা স্বাস্থ্যের পক্ষে খুবই ক্ষতিকর। তাই অবশ্যই সুস্বাস্থ্যবান থাকতে চাইলে নিয়মিত কমপক্ষে আধা ঘণ্টা ব্যায়াম করুন।


কিছু বদঅভ্যাস ত্যাগ

অনেকেরই সিগারেট এবং ড্রিংস এর নেশা রয়েছে শরীর মোটা করতে এবং সুস্বাস্থ্যবান থাকতে চাইলে অবশ্যই সকল প্রকার নেশাদ্রব্য ত্যাগ করতে হবে। পাশাপাশি বাহিরের ফাস্টফুড জাতীয় খাদ্য একদমই পরিহার করতে হবে।

এছাড়াও অতিরিক্ত সময় ধরে স্মার্টফোন এবং ল্যাপটপ ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকবেন। আর অবশ্যই স্বাস্থ্যের প্রতি যত্নশীল হবে। কারণ স্বাস্থ্য ভালো থাকলে খুবই সুন্দর অনুভূতি থাকে। যা স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে কখনোই বোঝা তো দূরের কথা কল্পনাও করা সম্ভব হয় না।


স্বাস্থ্য সংক্রান্ত এবং এই পোস্ট সংক্রান্ত যেকোন প্রশ্ন এবং মতামত থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন।


Wednesday, September 8, 2021

গান শোনার অপকারিতা কী?

গান শোনার অপকারিতা কী?

 



Beethoven বলেছিলেন " Music can change the world"


গান শুনা ভাল। গান শুনলে মন ভাল হয়ে যায়। গানের মধ্যেও অনেককিছু রয়েছে। গান একটা শিল্প। Bob Dylan গান গেয়েই সাহিত্যে নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন। 2pac Shakur গানের মাধ্যমেই প্রতিবাদ করেছিলেন। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধেও গান ভুমিকা রেখেছে মুক্তিযোদ্ধাদের মোটিভেট করার জন্য। গানের অনেক অনেক ভাল দিক রয়েছে।


ধর্মীয় দিক থেকে বলতে গেলে ইসলাম ধর্মে গান বাজনা একদমই নিষিদ্ধ। গানবাজনা মানুষকে সৃষ্টিকর্তা থেকে দূরে সরিয়ে নিয়ে যায় তাই ইসলাম ধর্মে গান বাজনা হারাম। Heavy Metal মিউজিক ব্রেইনের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। Heavy Metal মিউজিকে উচ্চ মাত্রায় ইনস্ট্রুমেন্টের ব্যবহার হয় যা ব্রেইনের ক্ষতি করতে পারে। তাছারা অনেক গান সুইসাইডের দিকে ঠেলে দিতে পারে কাউকে। এরকমই একটি গান হল Gloomy Sunday । এই গানটি অনেক বিতর্কের সৃষ্টি করেছিল। 


আজকাল পপ স্টাররা গানের যা বেহাল দশা করেছে। এদের গানের লিরিক্স দেখলে বমি আসে। যৌণতা, ভায়োলেন্স এ ভরপুর এইসব গান। ছোট বাচ্চারা যাদি এইসব গান শোনে তাহলে তাদের মানসিক অনেক সমস্যা হতে পারে। কোন অ্যালবামের নিচে যদি Advisory লগোটা দেখেন তাহলে বুঝবেন ঐ অ্যালবামের গান বাচ্চারা শুনতে পারবেনা। তবে আজকাল Niki Minaj আর Cardi B এর ইউটিউবের গানগুলোতে কোনোপ্রকার age restriction নেই। তাদের গানগুলোতে প্রচুর পরিমাণ যৌণতায় ভরপুর। হিন্দি গানগুলো বর্তমানে যেরকম লিরিক্স করছে তা আপনারা খুব ভালো ভাবেই বুঝতে পারতেছেন। বাদশা, নোরা, সহ প্রায় সব গানই এখন সেক্সুয়ালিটি রয়েছে। ছোটবাচ্চারা খুব সহজেই এইসব গানে ক্লিক করে দেখতে পারবে।


Photo design & caption: Megh Shawon 💙


পোস্টটি স্পরকেল সাইন্স থেকে কপি করে কিছুটা এডিট করা হয়েছে। 



খেয়াল রাখবেন আপনার পরিচিত মানুষদের প্রতি।

খেয়াল রাখবেন আপনার পরিচিত মানুষদের প্রতি।

 



খেয়াল রাখবেন আপনার পরিচিত মানুষদের প্রতি। যাদেরকে আপনি শ্রদ্ধা করেন তাদের প্রতি এক্সট্রা এটটেনশন দিবেন। 


আপনার প্রিয় মেয়েটি বা বোনটি বা প্রেমিকাটি কারো দ্বারা সেক্সুয়াল হ্যারাসমেন্ট হলো কিনা সেসব বিষয় অনেক ভালোভাবে খেয়াল করবেন। তার গোসলের ভিডিও বা কোনো ভাবে লিক হওয়া কোনো ভিডিও অনলাইনে পাওয়া যায় কিনা সেসব বিষয়ে লক্ষ করবেন। কেউ সেসব ভিডিও নিয়ে তাকে ব্ল্যাকমেইল করে কিনা, কেউ রাস্তায় হাঁটার সময় সেসব ভিডিও নিয়ে তাকে হ্যারাসমেন্ট করে কিনা সেসব বিষয় খেয়াল করবেন।


নইলে একটি জীবন অচিরেই ঝরে যেতে পারে আপনার চোখের সামনে আর আপনি টেরও পাবেন না কেনো সে আত্মহত্যা করলো। 


তেমন একটি কেস সলভ হলো আজকে। আশা করি কোনো জীবন ঝরে যাওয়ার আগেই আপনারা তাদেরকে নিরাপদে রাখবেন যারা আপনার খুব আপন। 



Monday, September 6, 2021

পরীমনির মামলায়  তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট 

পরীমনির মামলায় তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট 

 



ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা অভিযোগ এনে নায়িকা পরীমনির করা মামলার দীর্ঘ ২ মাস ২৩ দিন পর নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।

সোমবার (০৬ সেপ্টেম্বর) রাতে চার্জশিট দাখিলের বিষয়ে নিশ্চিত করেন সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মাইনুল ইসলাম।



আদালত সূত্রে জানা যায়, চার্জশিটভুক্ত অপর আসামি শাহ শহিদুল আলম পলাতক। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করা হয়েছে। এই মামলায় গত ২৯ জুন জামিন পান ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি।  

গত ১৪ জুন দুপুরে রাজধানীর উত্তরা-১ নম্বর সেক্টরের-১২ নম্বর রোডের একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের সময় ওই বাসায় অভিযান চালিয়ে বিদেশি মদ জব্দ করা হয়। এরপর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে বিমানবন্দর থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়।  

ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে গত ১৪ জুন বেলা ১২টার দিকে সাভার থানায় নাসির উদ্দিনসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন পরীমনি। এতে নাসির উদ্দিন ও তার বন্ধু অমির নাম উল্লেখ করে আরও চারজনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

বাদীর এজাহারে বলা হয়, গত ৮ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি বনানীর বাসা থেকে কস্টিউম ডিজাইনার জিমি, অমি ও বনিসহ দুটি গাড়িতে উত্তরার দিকে যান। পথিমধ্যে অমি জানান- বেড়িবাঁধে ঢাকা বোট ক্লাব লিমিটেডে তার ২ মিনিটের কাজ আছে। অমির কথামতো আমরা ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে রাত ১২টা ২০ মিনিটের দিকে গাড়ি দাঁড় করাই। কিন্তু বোট ক্লাব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অমি কোনো এক ব্যক্তির সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন। তখন ঢাকা বোট ক্লাবের সিকিউরিটি গার্ডরা গেট খুলে দেয়। তখন অমি ভেতরে যায় এবং অমি অনুরোধ করে এখানের পরিবেশ অনেক সুন্দর, তোমরা নামলে নামতে পারো।  

Sunday, September 5, 2021

ব্রেকিং নিউজঃখালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে যা বললেন ড. দিলারা

ব্রেকিং নিউজঃখালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে যা বললেন ড. দিলারা

 


বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সাবেক প্রধান ড. দিলারা চৌধুরী। শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে খালেদা জিয়ার বাসভবনে গিয়ে তার সঙ্গে দেখা করেন দিলারা।



খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে এসে তিনি বলেছেন, আমি রাজনীতি করি না। ফলে তার সঙ্গে রাজনৈতিক বিষয়ে আলাপ নেই। খালেদা জিয়ার সঙ্গে আমার ব্যক্তিগত সম্পর্ক রয়েছে। দীর্ঘদিন জেলে ছিলেন, তার শারীরিক অবস্থা কেমন সেটা‍ই দেখতে গিয়েছিলাম।


ড. দিলারা চৌধুরী বলেন, আমি এবং আমার স্বামী (গোলাম ওয়াহেদ চৌধুরী) জেনারেল জিয়াউর রহমানকে বহুদিন ধরে চিনতাম। খালেদা জিয়াও সব সময় আমার সঙ্গে সৌজন্যমূলক ব্যবহার করেছেন। তিনি যেহেতু দীর্ঘদিন কারাগারে ছিলেন, এখনও তো এক প্রকার বন্দি। এর আগেও আমি মির্জা ফখরুল ইসলামকে বলেছিলাম যে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে চা‍ই। তখন তিনি আমাকে বলেছিলেন ম্যাডাম অসুস্থ। এবার আমি তাকে (মির্জা ফখরুলকে) বললাম যে, অনেক দিনের জন্য দেশের বাইরে যাবো, তার আগে একটু দেখা করবো। এই জন্যই তিনি সাক্ষাতের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন।


Friday, September 3, 2021

শিশুদের গড়ে তুলুন ইসলামী আদর্শে

শিশুদের গড়ে তুলুন ইসলামী আদর্শে

 

শিশুদের গড়ে তুলুন ইসলামী আদর্শেশিশুদের গড়ে তুলুন ইসলামী আদর্শে

সন্তান যেন হতে পারে আমাদের নাজাতের উসিলা


শিশু-সন্তানের বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমরা তাদের দুনিয়াবী শিক্ষার প্রতি যতটা যত্নবান হই, দ্বীনি শিক্ষা ও সুন্দর আখলাক গঠনের ব্যাপারে সেভাবে মনোযোগ কি আমাদের থাকে? অনেক মা-বাবারই থাকে, আবার অনেকের থাকে না। যাঁদের থাকে, তাঁদের অনেকে আবার সুষ্ঠু ও সুন্দর ব্যবস্থাপনার অভাবে ভোগেন। আর যাঁরা এ ব্যাপারে উদাসীন তাঁরা তো আর উদাসীনই। 


অথচ সন্তানের চরিত্রগঠন ও দ্বীনি জ্ঞানার্জন শুরু করানোর প্রকৃত সময় শিশুকাল। শৈশবে বাচ্চারা থাকে অনেকটা কাদামাটির মতো। তাদেরকে যেভাবে আপনি গড়বেন, যে অভ্যাসে অভ্যস্ত করবেন, যা কিছু শেখাবেন, সেভাবেই তারা বেড়ে উঠবে। এই সময়টা খুবই স্পর্শকাতর, আবার অপার সম্ভাবনারও। যদি আপনি সময়টাকে কাজে লাগাতে পারেন। 


সন্তানের শিশুকালটা তাই বাবা-মাকে অনেক পরিকল্পনা করে তৈরি করে দিতে হয়। এমন না যে, আপনার তৈরি ২৪ ঘণ্টার রুটিন অনুযায়ী বাচ্চাকে চলতেই হবে। বরং এমন একটা পরিকল্পনা থাকবে, বাচ্চা তার বাচ্চামির ভেতর দিয়েও অনেক কিছু শিখে যাবে। শিখে যাবে মার্জিত আচরণ এবং সুন্দর আখলাক।


ব্যাপারটাকে হোমস্কুলিংও বলা যায়। এই স্কুলিংটা আপনি নিজে পরিকল্পনা করে করতে পারেন। নিজে করতে গেলে দীর্ঘ পড়াশোনা ও পরিকল্পনার দরকার পড়তে পারে। আবার এখন অনলাইনের যুগ হিসেবে ঘরে বসে নির্ভরযোগ্য কোনো প্রতিষ্ঠানের তত্ত্বাবধানেও করতে পারেন। 


অনলাইনে বিশুদ্ধ দ্বীন শেখার নির্ভরযোগ্য প্লাটফর্ম Aslaf Academy। বাচ্চাদের হোম স্কুলিংয়ের জন্য রয়েছে তাদের বিশেষ আয়োজন। আপনার বাচ্চার হোমস্কুলিংয়ের জন্য চাইলে তাদের কোর্সে অংশগ্রহণ করতে পারেন। কোর্সটির ব্যাপারে আগ্রহী হলে নিচের বাটনে ক্লিক করুন।



সমাজে বহুল প্রচলিত একটি ভুল ধারনা

সমাজে বহুল প্রচলিত একটি ভুল ধারনা


নির্দিষ্ট ধারাবাহিকতায় নখ কাটাকে সুন্নত মনে করা

সমাজে বহুল প্রচলিত একটি ভুল ধারনা


হাত ও পায়ের আঙ্গুলের নখ কাটার একটি ধারাবাহিকতা আমাদের সমাজে সুন্নত হিসাবে প্রচলিত। পাশাপাশি অনেকে আবার উক্ত পদ্ধতিতে নখ কাটার নানা রকম কল্পিত ফজিলত বর্ণনা করেন।


বলা হয়ে থাকেঃ "ডান হাতের শাহাদাত আঙ্গুল (তর্জনী) থেকে নখ কাটা শুরু করে কনিষ্ঠাঙ্গুল পর্যন্ত কাটতে হবে। এরপর বাম হাতের কনিষ্ঠাঙ্গুল থেকে কেটে বৃদ্ধাঙ্গুল পর্যন্ত। সবশেষে ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলের নখ কাটতে হবে। পায়ের ক্ষেত্রে ডান পায়ের কনিষ্ঠা থেকে শুরু করে বৃদ্ধাঙ্গুলি। এরপর বাম পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলি থেকে কনিষ্ঠা পর্যন্ত।"


লোকমুখে প্রচলিত উক্ত নিয়মটিকে সুন্নাহ বা হাদীস হিসাবে প্রচার করা হলেও বক্তব্যটি হাদীস নয়। নখ কাটার নির্দিষ্ট নিয়ম ও দিনের ব্যাপারে রাসূল (সা) থেকে কোনো কিছুই বর্ণিত নেই।[1]


একই রকম ভাবে শুক্রবার বা বৃহস্পতিবার নখ কাটাকে অনেকে সুন্নত মনে করে থাকেন। এটিও সঠিক নয়। গ্রহনযোগ্য কোনো হাদীস দ্বারা শুক্রবার বা বৃহস্পতিবার নখ কাটা সুন্নত হবার বিষয়ে প্রমাণ পাওয়া যায় না। 

অনেকে ধারনা করেন, শনিবার নখ কাটা নিষেধ বা অকল্যানকর। এটাও ইসলামী শরীয়তের দৃষ্টিতে সঠিক নয়। নখ বড় হলে শনিবার বা অন্য যে কোনো দিনে কাটা যেতে পারে।


জনৈক বুজুর্গ ব্যক্তি বৃহস্পতিবার নখ কাটছিলেন। তা দেখে এক লোক বলছিলেন যে, আগামীকাল তো জুমআর দিন। কালই নখ কাটতে পারতেন। তখন তিনি বলেছিলেন যে, নেক কাজে দেরি করা উচিত নয়।[2]


=================================

নখ কাটা সম্পর্কিত প্রচলিত ভুল আমাদের করণীয় সম্পর্কে আরো বিস্তারিত দলিল সহ জানতে নিচের লেখাটি পড়তে পারেনঃ

https://hellohasan.com/2021/08/30/নখ-কাটার-সুন্নত-ভুল-ধারনা

=================================


নখ কাটা বিষয়ে আমাদের করণীয়

==========================

আমরা নিয়মিত নখ কেটে পরিষ্কার রাখব। যখন নখ বড় হবে তখনই কেটে ফেলব। একেক জনের নখের বৃদ্ধি একেক রকম হতে পারে। কারো সপ্তাহে এক বার নখ কাটলেই যথেষ্ট হতে পারে। আবার কারো সপ্তাহে দুইবারও কাটার প্রয়োজন হতে পারে।


নখ কাটার ক্ষেত্রে উপরে যেই ধারাবাহিকতার উল্লেখ রয়েছে একে সুন্নাহ মনে করব না। কারণ এই ধারাবাহিকতায় নখ কাটার বিষয়টি কোনো গ্রহনযোগ্য হাদীস দ্বারা প্রমাণিত নয়। তবে সকল ভাল কাজ ডান দিক থেকে শুরু করা সুন্নাহ। সে হিসাবে আমরা আমাদের হাত ও পায়ের নখগুলো ডান দিক থেকে কাটলে তা সুন্নাহসম্মত হবে ইনশাআল্লাহ।[3]


এছাড়া নখ কাটার জন্য কোনো দিনকে নির্দিষ্ট করে সুন্নাহ বলে অভিহিত করব না। যেমনঃ শুক্রবার বা বৃহস্পতিবার নখ কাটাকে সুন্নাহ বলব না। শনিবার নখ কাটলে তাকে নিষেধ বা অকল্যান-অশুভ মনে করব না। 


নিজেদের অভ্যাসবশত বা নিয়মিত ভাবে নখ কাটার আমলটি করার জন্য সুবিধামত কোনো দিনকে বেছে নিতে পারি। সেটি শুক্রবার হতে পারে। আবার শনিবার কারো ছুটির দিন হলে, তার জন্য শনিবার নখ কাটা সুবিধাজনক হতে পারে। 

শুক্রবার বা অন্য যে কোনো একটি দিনে অভ্যাসবশত নিয়মিত কাটলেও সমস্যা নাই। শুধু মনের মাঝে এই চিন্তা আনব না যে "শুক্রবার নখ কাটা সুন্নত"। বরং নিয়ত থাকবে "নখ কাটা সুন্নত"। তা যে দিন, যে নিয়মেই কাটি না কেন; সুন্নত আদায় হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।


আল্লাহ আমাদের সবাইকে প্রচলিত ভুল ও বিদআত থেকে হেফাজত করুন। সুন্নাহের উপর জীবন পরিচালনার তাওফিক দান করুন। আমীন।


তথ্যসূত্রঃ

=========

1. প্রচলিত জাল হাদীস, মাওলানা আব্দুল মালেক (পৃষ্ঠা ১৪৮)

2. মাসিক আলকাউসার - ডিসেম্বর ২০১০ (https://www.alkawsar.com/bn/article/323)

3. মাসিক আলকাউসার - এপ্রিল ২০০৯ (https://www.alkawsar.com/bn/qa/answers/detail/1582)


কিভাবে ফেসবুকে ব্লু ভেরিফাই করতে হয়?

কিভাবে ফেসবুকে ব্লু ভেরিফাই করতে হয়?

 


১.পেজে ব্লু টিক পেতে হলে,, পেজ ক্যাটাগরি Music Artist এবং পেজ কোয়ালিটি গ্রিণ এবং ভায়োলেন্স মুক্ত হতে হবে। 

২.ব্যক্তির নিজস্ব নামে পেজ এবং nid/smart card/passport /driving licence. থাকতে হবে। 


ফেসবুকে যখন কোনো মানুষ ব্লু টিক এর জন্য এপ্লাই করে ফর্ম পূরণ করে, ফেসবুক কতৃপক্ষ তখন তার নামটি গুগলে সার্চ করে থাকে। যদি গুগলে ওনার সম্পকে ভালো তথ্য থাকে,google knowledge panal,Wikipedia, imdb তে থাকে এবং গুগলের রেকিং এ ভালো এমন নিউজ সাইটে ওনার সম্পর্কে কোনো article  নিউজ ছাপা থাকে তাহলে ব্লু পাওয়ার যায়। এবং নিজস্ব ওয়েবসাইট থাকে তাহলে আরো ভালো। 


আমি মুলত ব্লু ভেরিফাই হওয়ার জন্য ৩টি জিনিসকে মেইন মনে করি,,,

১।গুগল নলেজ প্যানেল (এটা ওটোমেটিক তৈরি হয় গুগলে,যখন মানুষ আপনাকে নিয়ে সার্চ করে,বা অন্য কোনো প্লার্টফমে আপনি জনপ্রিয়,তখন নলেজ প্যানেল সরাসরি হয়ে যায়) 


২।নিজস্ব ওয়েব সাইট থাকা চাই আপনার নামে 


৩।আপনার নামে নিউজ করা চাই বিভিন্ন টপ রেকিং ওয়েবসাইটে ইংরেজিতে। 


আসেন এবার music artist হিসেবে পেজ ব্লু করতে চান তাদের কি কি লাগবে,,


১. নিজের গাওয়া গান /তৈরিকৃত মিউজিক,, যেটা চুরি করা বা অন্য কোথাও থেকে সংগ্রহ করা না৷ আপনি চাইলে মিউজিক কিনতে পারবেন,(যেটাকে লাইসেন্স করা বলা হয়),কোনো প্রতিষ্ঠান থেকে মিউজিক কিনে নিলে যেখানে ঐ কোম্পানি কপিরাইট দেয় না,কারণ আপনি ওনাদের পে করেছেন এবং লাইসেন্স পাইছেন। এরকম ৫/৬ টা মিউজিক কিনতে বাংলা টাকায় ১৬০০/১৭০০ যাবে। একেক কোম্পানি একেক রকম নেয়,,কম আপনাকে খুজতে হবে৷ আর আপনি মিউজিক বানাতে পারলে তো কথাই নাই। 


২. ডিস্ট্রিবিউটর খরচ (এরা হলো এমন মাধ্যম যারা আপনার মিউজিককে বিভিন্ন প্লার্টফর্মে ছড়িয়ে দেয় বা আপলোড হতে সাহায্য করে। ইউটিউবে যেমন আপনি সরাসরি গান/ ভিডিও আপলোড করতে পারেন। কিন্তু বিভিন্ন মিউজিক প্লাটফর্মে গান আপলোড এর জন্য আপনাকে ডিস্ট্রিবিউটরের সহায়তা নিতে হবে। এরা স্পটিফাই, এপেল মিউজিক, ডেজার সহ নানা প্লাটফর্মে গাণ ছড়িয়ে দিবে৷ ডিস্টিবিউটর খরচ 20$ /22$ (একেক ডিস্ট্রিবিউটর একেক চার্জ নেয়)


৩.স্পটিফাই আর্টিস্ট ভেরিফাই,(এটা গুরুত্বপূর্ণ, একটা পেলে বাকি গুলোও ভেরিফাই হয়ে যায় লাইক apple music,amazon,youtube artist channel 


৪.কয়েকটা পত্রিকাকায় নিউজ (আপনার সম্পকে আর্টিকেল) করাতে হবে,,এগুলোতে ও প্রতি নিউজে ভালোই খরচ পড়বে। 


৫.গুগল নলেজ ওটো ক্রিয়েট হয়ে যাবে। সেটা ক্লেইম করতে হবে


৬, আপনার নিজস্ব ওয়েবসাইটে,আপনার সম্পকে আর্টিকেল/বায়োগ্রাফি থাকতে হবে (যেমন আপনি বাংলাদেশের সফল মিউজিক আর্টিস্ট,উদ্দোক্তা, ইত্যাদি। 


এগুলো হলেই আপনি ভেরিফাই পাবেন পেজে কম লাইকেই বা কম ফলোয়ারে। page verify তে follower/like doesn’t matter.


আরো ভালো হয় আপনি উইকিতে,imdb তে বায়োগ্রাফি লিখাতে পারেন।

Thursday, September 2, 2021

বৃহস্পতিবার তৃতীয় বিয়ে করলেন অপূর্ব

বৃহস্পতিবার তৃতীয় বিয়ে করলেন অপূর্ব

বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান। জমকালো সেই আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী শাম্মা দেওয়ানকে বধূ হিসেবে গ্রহণ করেন অপূর্ব। 



টকটকে শাড়ি আর গয়নাতে সেজেছেন শাম্মা। আর অপূর্ব পড়েছেন করেছেন পাঞ্জাবী-পায়জামা। 


বিয়ের সম্পন্ন হওয়ার পর অপূর্ব বলেছেন, ‘আলহামদুল্লিাহ, ছোট পরিসরে বিয়ের আয়োজন সম্পন্ন হলো। আপনারা সবাই আমাদের নতুন সম্পর্কের জন্য দোয়া করবেন।’


এটি অপূর্বর তৃতীয় ও শাম্মার দ্বিতীয় বিয়ে। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর অপূর্বর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে শ্যাম্মার। তারপরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। এদিকে, গত বছর নাজিয়া হাসান অদিতির সাথে ভেঙে যায় অপূর্বর দ্বিতীয় সংসার। ২০১০ সালের ১৯ আগস্ট অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাকে বিয়ে করেছিলেন অপূর্ব। এর পরের বছরের ফেব্রুয়ারিতে ডিভোর্স হয়ে যায় তাদের। ওই বছরের ১৪ জুলাই পারিবারিকভাবে অদিতিকে বিয়ে করেছিলেন অপূর্ব।


শাম্মা দেওয়ানের বাসা ঢাকার লালমাটিয়ায়। তবে তার জন্ম ও বেড়ে ওঠা যুক্তরাষ্ট্রে। এর আগে শাম্মার আরেকটি বিয়ে হয়েছিল বলে জানা যায়।